October 29, 2020, 2:17 am

তার ‘কালো হরিণ চোখ’

বিনোদন ডেস্ক: জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলামের প্রয়াণ দিবস উপলক্ষে তরুণ নির্মাতা সীমান্ত সজল নির্মাণ করেছেন একক নাটক ‘কালো হরিণ চোখ’। কাজী নজরুল ইসলামের ‘বাদল বরিষণে’ গল্পের ছায়া অবলম্বনে নাটকটির চিত্রনাট্য রচনা করেছেন বিষ্ণু ঈয়াস।

গল্প প্রসঙ্গে পরিচালক সীমান্ত সজল বলেন, ‘কাজী নজরুল ইসলামের বাদল বরিষণে গল্পটি মূলত ভাদ্রের শুক্লা পঞ্চমীর বৃষ্টিমুখর রাতে প্রিয় মানুষের বিসর্জনের ব্যথা স্মৃতি  রোমন্থন করা একটি বেদনাতুর গল্প। গল্পটি বর্ণ ও ধর্ম বৈষম্য নিয়ে। কাজরী নামে কালো এক মেয়ের কালো হরিণ চোখ দেখে মুগ্ধ হয় গল্পের নায়ক ইউসুফ। ইউসুফ হলো জমিদারের ছোট নাতি। এখন জমিদারি না থাকলেও গ্রামে তাদের জমিদারি বংশের সুখ্যাতি রয়ে গেছে।’

তিনি আরো বলেন, ‘অনেক বছর পর জমিদার নাতি ইউসুফ গ্রামে এসে কিশোরী কাজরীর চঞ্চলতায় মুগ্ধ হয়। বিশেষ করে কাজরীর কালো হরিণ চোখ তাকে আকৃষ্ট করে। কাজরীর সঙ্গে কথা বললে বুঝা যায় কাজরী তার কালো রূপের কারণে নিজেকে সবসময় তুচ্ছ অবহেলিত ভাবে। কিন্তু ইউসুফ তাকে বুঝায় মানুষের সৌন্দর্য বাইরের রূপে নয় আসল সৌন্দর্য তার মনের ভেতর। তারপরও কাজরী নিজেকে ছোট ভেবে তার কালো রূপের স্রষ্টার নিকট আরাধনা জানায়। এদিকে কাজরীর বাবা হরেন ছুতো জোর করে মদখোর বিষ্ণুর সঙ্গে কাজরীর বিয়ে ঠিক করে। বিয়ের আসর থেকে কাজরী পালিয়ে যায়। তারপরই গল্প মোড় নেয় ভিন্ন দিকে।’

কাজরী চরিত্রে অভিনয় করেছেন মৌসুমী হামিদ। ইউসুফ চরিত্র রূপায়ন করেছেন রওনক হাসান। এছাড়াও বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করেছেন—জয় রাজ, ডা. আমিন, অধরা প্রিয়া, আয়শা, কাজী বাবুল, জুয়েল রানা, সাগর দাশ, রিয়ান মালিক রানা, সাজিদ খান ও ইয়াসির আরাফাত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর