October 27, 2020, 3:47 pm

করোনা সচেতনায় কুলিয়া ৯নং ওয়ার্ডের মেম্বার বিকাশ সরকারের বিভিন্ন উদ্যোগ

শাহিনুর ইসলাম: প্রাণঘাতি কোভিড-১৯ করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে জনসচেতনায় বিভিন্ন স্থানে বিলবোর্ড স্থাপন, ওয়ার্ডের বিভিন্ন প্রবেশমুখে জীবাণুনাশক রাখাসহ নানা উদ্যোগ গ্রহণ করেছে দেবহাটা উপজেলার কুলিয়া ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের মেম্বার বিকাশ সরকার। ওয়ার্ডের বিভিন্ন এলাকায় জনসচেতনতা বাড়াতে মেম্বার কর্তৃক ১৮ সদস্য বিশিষ্ট স্বেচ্ছাসেবক কমিটি গঠন করে ‘করোনা ভাইরাস বিষয়ে সচেতনতা, সতর্কতা ও প্রতিরোধ কমিটি’ বিলবোর্ড স্থাপন করেছে। বিলবোর্ডে কোভিড-১৯ করোনা ভাইরাস কিভাবে ছড়ায়, এর লক্ষণসমূহ, কাদের ঝুঁকি বেশি, প্রতিরোধে কী কী করণীয়, আক্রান্ত হলে কি করণীয় এবং সরকার ঘোষিত হটলাইন নম্বরও সংযোজন করা হয়েছে। সরজমিনে গিয়ে দেখা যায়, এই ইউপি সদস্য বিকাশ সরকারের নেতৃত্বে ও এলাকার যুবসমাজের উদ্যোগে কুলিয়ার শশাডাঙ্গা সহ ওয়ার্ডের বিভিন্ন এলাকার বিভিন্ন দোকান, ইজিবাইক, মোটরসাইকেলসহ জনসাধারনকে কোভিড-১৯ করোনা ভাইরাসের বিষয়ে জনসচেতনতা ও জীবাণুনাশক স্পে করা হচ্ছে। ইউপি সদস্য বিকাশ সরকার বলেন, আমাদের ওয়ার্ডে প্রায় ৩২ জনের মত মানুষ বিভিন্ন জায়গা থেকে এসেছে তাদের কে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে এবং আমি নিজেই তদারকী করছি। এলাকার যুবকদের নিয়ে আমার ওয়ার্ডে ১৮ সদস্য বিশিষ্ট একটা স্বেচ্ছাসেবক কমিটি গঠন করেছি। তারা সব সময় মানুষের সেবার জন্য নিয়োজিত আছে। আমার এই ৯নং ওয়ার্ডে প্রবেশ করতে হলে ৪ জায়গায় জীবাণুনাশক স্প্রে করা হচ্ছে। এলাকার বিত্তবানরা আমাদের সাথে এগিয়ে আসছে। তাছাড়া এলাকায় যেসব বৃদ্ধ আছে তাদেরকে আমরা চিকিৎসা সেবা প্রদান করার জন্য কমিটিউনিটি ক্লিনিক ডাক্তারদের সাথে কথা বলেছি। আমাদের আর্থিক হাতিয়ার অল্প হলেও আমরা কোন দিক দিয়ে পিছিয়ে নেই। আমাদের কুলিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব ইমাদুল ইসলাম ও তার ভাই ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আসাদুল ইসলামের উদ্যোগে আমরা অসহায় মানুষের ঘরে খাদ্য পৌছিয়ে দিচ্ছি। শিক্ষার ক্ষেত্রেও আমরা বিকল্প পথ গ্রহণ করেছি। এলাকার যে সব শিক্ষক আছে তাদের সাথে কথা বলেছি তারা ছাত্র-ছাত্রীদের তদারকী করবে বাড়ি বাড়ি গিয়ে। আমার এখানে কেউ প্রয়োজন ছাড়া বাড়ির বাহিরে যেতে পারে না। একজন ইউপি চেয়ারম্যান, উপজেলা চেয়ারম্যান ও এমপি মহোদয়ের পক্ষে একা এগুলা করা সম্ভব নই যদি আমরা সাথে না থাকি। তাই আমি বলতে চাই সবার যার যার স্থান থেতে এগিয়ে আসুন, ‘নিজে বাঁচুন অন্যের পরিবারকে বাঁচান’। এদিকে একজন মেম্বার এই উদ্যোগ দেখে এলাকার সচেতন মহল প্রশংসায় মূখরিত।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর