October 28, 2020, 4:43 am

নানা বাহানায় বের হচ্ছে মানুষ, নেই সচেতনতা

নিজস্ব প্রতিবেদক : মহামারি করোনাভাইরাসের প্রকোপ ঠেকাতে প্রায় এক মাস ধরে দেশে চলছে সাধারণ ছুটি। অঘোষিত লকডাউনে পুরো দেশ। মানুষকে ঘরে থাকতে বারবার আহ্বান জানানো হচ্ছে নানা মহল থেকে। মাঠে রয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ও সশস্ত্র বাহিনী। কিন্তু কোনোভাবেই ঠেকানো যাচ্ছে না মানুষের অপ্রয়োজনীয় চলাচল।

এই মহামারি থেকে রক্ষায় সবচেয়ে ফলপ্রসূ উপায় সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা। এটা নিশ্চিত করতেই ঘোষণা করা হয়েছে সাধারণ ছুটি, বন্ধ রয়েছে সবধরনের গণপরিবহন। কিন্তু নানা বাহানায় মানুষ ঘর থেকে বের হচ্ছে, ঘুরে বেড়াচ্ছে অকারণে। মানছে না স্বাস্থ্যবিধিও।

রাজধানীর প্রবেশ মুখগুলোতে করোনা সতর্কতা উপেক্ষা করেই বেড়েছে প্রবেশ ও বের হওয়ার প্রবণতা। নানা অজুহাতেই প্রতিদিন গাবতলী, যাত্রাবাড়ী, আব্দুল্লাহপুর দিয়ে ঢুকছে ও বের হচ্ছে হাজারো মানুষ। আর রাজধানীর বাজারগুলোতে গেলে বোঝার উপায় নেই দেশে লকডাউন চলছে।

কিছু লোক প্রয়োজনে বাসা থেকে বের হলেও অনেকে এই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে অপ্রয়োজন কিংবা বিনা প্রয়োজনেই চলাচল করছে। এর একটি বড় অংশ চিকিৎসার কথা বলে পার পেয়ে যাচ্ছে। তাই কোনোভাবেই প্রশাসনও তাদের নিয়ন্ত্রণ করতে পারছে না।

রাজধানীর সাইনবোর্ড এলাকায় ট্রাফিক পুলিশের দায়িত্বে থাকা এক সদস্য নিজের নাম প্রকাশ না করার শর্তে ঢাকা টাইমসকে জানান, কিছু কিছু অ্যাম্বুলেন্স এখন যাত্রী পারাপার করছে। তবে তিনি জানান, সন্দেহ হলে তারা এসব গাড়ি ফিরিয়ে দিচ্ছেন। মানুষের প্রয়োজনের কথা বিবেচনা করে তারা কিছুটা ছাড় দিচ্ছেন বলেও জানান তিনি।

রাজধানীর প্রায় প্রতিটি প্রবেশদ্বারেই প্রশাসনের চোখ ফাঁকি দিয়ে কিংবা নানা বাহানা করে শহরে ঢুকছে মানুষ। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী বলছে, তারা তাদের অবস্থান থেকে সর্বোচ্চ চেষ্টা করছে, তবে মানুষের মধ্যে সচেতনতার অভাবের কারণে তারা পেরে উঠছে না।

শুরুর দিকে প্রশাসনকে বেশ কঠোর অবস্থানে থাকতে দেখা গেলেও এখন অনেকটা ঢিলেঢালা। নতুন আইজিপি বেনজীর আহমেদ লকডাউনের মধ্যে মানুষের সঙ্গে ভালো আচরণ করতে পুলিশের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। এরপর থেকে পুলিশকে অনেকটা নমনীয় আচরণ করতে দেখা গেছে। তবে বিনা প্রয়োজনে বের হওয়া নগরবাসীকে র‌্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত প্রতিদিনই জরিমানাসহ বিভিন্ন শাস্তি দিচ্ছে।

এদিকে দেশে করোনা পরিস্থিতি দিন দিন আরও জটিল হচ্ছে। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ৫০৩ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন, এটি একদিনে সর্বোচ্চ আক্রান্তের সংখ্যা। বর্তমানে এই ভাইরাসে আক্রান্ত চার হাজার ৬৮৯ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় চারজন করোনামুক্ত হয়েছেন। এ পর্যন্ত সুস্থ হয়ে বাড়ি গেছেন ১১২ জন। গতকালের চেয়ে আজ আক্রান্ত বেড়েছে ৮৯ জন। গতকাল আক্রান্ত হয়েছিল ৪১৪ জন। এ ছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে আরও চারজন মারা গেছেন। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১৩১ জনে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর